হাসাইল-দিঘিরপাড় আড়ৎ সহ বাড়ি বাড়ি বিক্রি হয় ঝাটকা

0
19
হাসাইল-দিঘিরপাড় আড়ৎ সহ বাড়ি বাড়ি বিক্রি হয় ঝাটকা
প্রকাশিত :বৃহস্পতিবার,  ৯ এপ্রিল ২০২০ ইং ।। ২৬ চৈত্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।
বিক্রমপুর খবর : টঙ্গীবাড়ি থেকে নিজস্ব প্রতিনিধি  আবু বাক্কার মাঝি : টঙ্গীবাড়ি উপজেলার দক্ষিনে পদ্মা তীরবর্তী হাসাইল ও দিঘিরপাড়ের বৃহৎ মাছের আড়ৎ গুলোতে প্রতিদিন সকালে চলে পাইকারী ঝাটকা বিক্রি। বুধবার সকালে উপজেলার হাসাইল মাছের আড়ৎ ঘুরে দেখা যায় ঝুড়ি ঝুড়ি ইলিশের পোনা বিক্রি করছে জেলেরা দাম হাকাচ্ছে আড়ৎদার ক্রয় করছে খুচরা বিক্রেতারা। একই চিত্র উপজেলার দিঘিরপাড় বাজারেও। নদীর পাড়ে মাছ ধরার নৌকা ভিড়িয়ে জেলেরা মাছের খাচি নিয়ে ছুটছে আড়ৎএ। সেখানে মাত্র ১০০ থেকে ১২০ টাকা কেজি দড়ে বিক্রি হচ্ছে কয়েক শত ইলিশের পোনা।
করোনা সহ খাদ্য সহায়তা নিয়ে প্রশাসন যখন ব্যস্থ সময় পার করছে তখনই সুযোগ বুঝে জাটকা ধরে বিক্রি শুরু করেছে জেলেরা। সেখানে দেখা মেলে খুচরা বিক্রেতা আল-আমিনের সঙ্গে তিনি জানান ১০০ টাকা কেজি দরে ক্রয় করে গ্রামে ঘুরে ঘুরে সে ১৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করে। হাসাইল বাজারের আড়ৎদার সাহেদ আলী খালাসি, সোনামিয়া সর্দার, সোহেল হাওলাদার সহ অনেকের আড়ৎতে ঝাটকা বিক্রি করলেও তারা কেন বিক্রি করছে জানতে চাইলে জানান- আপনার কি? আপনার পুকুরের মাছ বিক্রি করছি নাকি সরেন সময় নাই আপনার লগে পেচালের। পরে সকাল ১১টায় হাসাইল-টঙ্গীবাড়ি রাস্তার নগরকান্দি হালিমের দোকানের সামনে দেখা মেলে আল-আমিনের সঙ্গে আল-আমিন বড় আকারের পাতিলে ঝাটকার বোঝা মাথায় নিয়ে বিক্রি করছে।
উপজেলা মৎস কর্মকর্তা জাকির মৃধা জানান- আমরা নিয়মিত মৎস বাজার মনিটরিং করি তবে করোনার কারনে কিছুটা ব্যঘাত ঘটছে আমরা ঝাটকার বিষয়ে কাউকে ছাড় দেই না।

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন