বিক্রমপুরের ঐতহ্যবাহী ‘বিবিখানা পিঠা’

0
227

প্রকাশিত:মঙ্গলবার,১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯।  

বিক্রমপুর খবর: নিজস্ব ডেস্ক: বিক্রমপুরের নিজস্ব পিঠা এই ‘বিবিখানা পিঠা’। একদিকে হেমন্তে-নবান্নে আসা নতুন চাল, অন্যদিকে শীতের খেজুর গুড়। দুইয়ে মিলে জমে উঠে শীতের পিঠা। এরমধ্যে অন্যতম বিবিখানা পিঠা। এটা বিক্রমপুরের বিখ্যাত এক পদ। কথিত আছে, সাহেব-বিবিরা খেতেন বলে এই পিঠার নাম হয়েছে বিবিখানা। শীতকাল মানেই পিঠা খাওয়ার ধুম। এ সময় বাংলাদেশের ঘরে ঘরে চলে পিঠা খাওয়ার উৎসব।

বিক্রমপুরের একটি বিখ্যাত পিঠা এটি। আপনারা নিশ্চই ‘বিবিখানা পিঠা’র নাম শুনেছেন। ওভেনে ও চুলায় দুই ভাবেই করা যায়। আসুন জেনে নেই ‘বিবিখানা পিঠা’র রেসিপি।

(এককথায়-বিবিখানা পিঠা বিক্রমপুরের ঐতিহ্যবাহী পিঠা। ঘন দুধ, পোলাওয়ের চালের গুড়া, বিভিন্ন রকম বাদাম বাটা, ঘি ও খেজুরের গুড় দিয়ে তৈরি এ পিঠা স্বাদে অতুলনীয়।)

উপকরণ :

 পোলাওয়ের চালের গুঁড়া ১ কাপ,

 নারিকেল কোরানো -১ ১/২ কাপ,

 ময়দা ২ টেবিল-চামচ,

 খেজুরের গুড় বা চিনি ১ কাপ,

 ডিম ২টি,

 ঘন দুধ ১ কাপ,

 ঘি আধা কাপ,

 এলাচের গুঁড়া আধা চা-চামচ।

প্রনালীঃ

*পোলাওয়ের চালের গুঁড়া (বা আতপ চালের গুড়ো) শুকনো কড়াইতে টেলে নিন।

*খেজুরের গুড় সামান্য একটু পানি দিয়ে চুলায় অল্প আঁচে গলিয়ে নিন। ঠাণ্ডা করে নিন।

* ডিম ফেটিয়ে ঘি, দুধ ও চিনি দিয়ে ফেটাতে থাকুন। এবার গুঁড় মিশিয়ে নিন।

*শুকনা উপকরণগুলো অল্প অল্প করে ডিমের মিস্রণে ভালো করে মিশিয়ে নিন। কোন দলা যাতে না থাকে।

ওভেনের পদ্ধতিঃ

• ওভেন  প্রুফ বাটিতে অ্যালুমিনিয়ামের সামান্যকোন পাত্রে তেল মেখে মিশ্রণ ঢালতে হবে।

• ইলেকট্রিক ওভেনে ১০ মিনিট প্রিহিট করে, ১৬০ ডিগ্রি তাপে ৩৫-৪০ মিনিট বেক করুন।

চুলার পদ্ধতিঃ

• চুলায় তৈরি করতে হলে মাঝারি আঁচে একটা পাতিলে বালু দিয়ে ১০মিনিট গরম করে নিতে হবে।

• তারপর মিশ্রণের বাটি বালুতে বসিয়ে ঢাকনা দিয়ে ৪০-৪৫ মিনিট রান্না করতে হবে।

(একটা কাঠি দিয়ে পিঠার মাঝখানে দেখতে হবে পিঠা হয়েছে কিনা? কাঁচা না থাকলে হয়ে গেছে)।

জেনে নিন

বিবিখানা পিঠা চুলা থেকে নামিয়ে কেটে গরম গরম পরিবেশন করা যায়। আবার ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা পিঠাও পরিবেশন করতে পারেন। # বেকিং পাউডার ব্যাবহার করা যায় না।

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন