বৌলতলী ইউপি’র ৩নং ওয়ার্ড পয়সা গ্রামের নবনির্বাচিত মেম্বার পলাশ রাজ ভোটারদের ভালোবাসায় সিক্ত!!

0
66

প্রকাশিত: রবিবার,২ জানুয়ারি ২০২২ইং।। ১৮ই পৌষ  ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (শীতকাল)।। ২৮ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী।।

বিক্রমপুর খবর : লৌহজং সংবাদদাতা : লৌহজং উপজেলার বৌলতলী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ড পয়সা গ্রামের নব-নির্বাচিত সদস্য হিসেবে জনপ্রিয় তরুন সমাজকর্মী পলাশ রাজ বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছেন।বিজয়ী হয়ে তার অনুভুতি জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, নির্বাচনে জয় পরাজয় থাকবেই। আমরা যারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছি তাদের সকলের উদ্দেশ্য ছিল এলাকার মানুষের জন্য কাজ করা। যারা মানুষের জন্য কাজ করতে আগ্রহী তারা নির্বাচনে জয়-পরাজয় নিয়ে ভাবেন না। আমি সকলকে নিয়ে এই ৩নং ওয়ার্ডকে একটি মডেল ওয়ার্ডে পরিনত করতে চাই। যারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন তাদের সকলকে আমি বন্ধু মনে করি। তাদের প্রতি আমার আহ্বান আসুন আমরা জয়-পরাজয় ভুলে গিয়ে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে মানুষের সেবায় এবং এলাকার উন্নয়নে একসাথে কাজ করি।

পলাশ রাজ বলেন, নির্বাচন একটি গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া। নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণ তাদের পছন্দের নেতার হাতে এলাকার উন্নয়নের দায়িত্ব অর্পণ করেন।
রবিবার (২৬ ডিসেম্বর) জয়ের পর তিনি আরো বলেছেন, আমি জনগণের এ রায়ে গর্বিত।

বিশেষ করে আমার নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্ব যারা পালন করেছেন -তাদের প্রতি আমার কৃতজ্ঞতার শেষ নেই। কারন তারা নিজেরা উদ্দ্যোগী হয়ে আমার নির্বাচনের জন্য ফান্ড তৈরি করেছে, মিছিল করেছে, মিটিং করেছে। তারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে আনন্দমুখর পরিবেশ তৈরি করেছে। বিভিন্ন এলাকায় বসবাসরত আমার এলাকার ভোটারদের আমাকে ভোট দেয়ার জন্য নিয়ে এসেছেন। সর্বোপরি আমাকে বিজয়ী করার জন্য তারা সবকিছু করেছেন। মহিলারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে আমার জন্য ভোট চেয়েছে, ছোট ছোট বাচ্চারা ও মিছিল করেছে, অনেক মুরুব্বিরা আমার জন্য দোয়া করেছেন। পয়সা গ্রামের মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে আমার নির্বাচন করেছে। আমাকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেছে।

আমি গরীব মানুষ। আমি তাদের এককাপ ও খাওয়াতে পারি নাই। আমি তাদের কাছে চিরকৃতজ্ঞ। তাদের এই ভালবাসা, এই অবদানের প্রতিদান আমি আগামী ৫ বছরে আমার কর্মের মাধ্যমে প্রমাণ দিতে চাই।

আমার কাজ করার ইচ্ছা আছে। আপনারা আমার জন্য দোয়া করবেন। আল্লাহ যেন আমাকে সুস্থ রাখেন, আমি যেন নিজেকে আমার গ্রামবাসীর সেবায় নিয়োজিত করতে পারি।

আপনারা জানেন একজন মেম্বারের কর্মক্ষেত্র সীমিত। আমাদের সম্মানীত চেয়ারম্যান হাজী আব্দুল মালেক শিকদার সাহেব একজন দক্ষ জনপ্রতিনিধি। আশা করি তিনি আমাকে বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতা করবেন। তার সহযোগিতায় আমি আমার ওয়ার্ডকে একটি মডেল ওয়ার্ড হিসেবে গড়ে তুলতে পারব ইনশাআল্লাহ।

 (বিজ্ঞাপন)  https://www.facebook.com/3square1

নিউজটি শেয়ার করুন .. ..              

   ‘‘আমাদের বিক্রমপুর-আমাদের খবর।

আমাদের সাথেই থাকুন-বিক্রমপুর আপনার সাথেই থাকবে!’’

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন