জ্ঞানালোক পুরস্কার-২০১৯ পাচ্ছেন তাসমিমা হোসেন

0
187
জ্ঞানালোক পুরস্কার-২০১৯ পাচ্ছেন তাসমিমা হোসেন

প্রকাশিত: শুক্রবার,১০ জানুয়ারি, ২০২০ ইং ||২৬ পৌষ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ।

বিক্রমপুর খবর:অফিস ডেস্ক: সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন কর্তৃক প্রদত্ত জ্ঞানালোক পুরস্কার-২০১৯ পাচ্ছেন দৈনিক ইত্তেফাক এবং অনন্যা সম্পাদক তাসমিমা হোসেন। নারীর অধিকার ও মর্যাদা প্রতিষ্ঠা এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাঁদের সৃজনশীল কর্ম ও অবদানকে সমুন্নত করার ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত ও সংগঠিত উদ্যোগের স্বীকৃতিস্বরূপ এই পুরস্কার পাচ্ছেন তিনি। শিল্পসাহিত্য সংস্কৃতি শিক্ষা স্বাস্থ্য গবেষণা সাংবাদিকতা জ্ঞানচর্চা ও সমাজসেবাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রাতিষ্ঠানিক এবং ব্যক্তি উদ্যোগের স্বীকৃতি হিসেবে অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন ২০১৫ সাল থেকে এই পুরস্কার প্রদান করে আসছে। এর অর্থমূল্য ১লক্ষ টাকা।

 

আগামী ১১ জানুয়ারি ২০২০,শনিবার সকাল সাড়ে দশটার সময় মি: এ লৌহজং (মুন্সীগঞ্জ) সরকারি কলেজ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিতব্য অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের দ্বিতীয় সম্মিলনের উদ্বোধনী অধিবেশনে আনুষ্ঠানিকভাবে এই পুরস্কার প্রদান করা হবে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির আসন অলঙ্কৃত করবেন মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন জাতীয় সংসদের  মাননীয় সদস্য মৃণাল কান্তি দাস এমপি এবং সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি এমপি। অনুষ্ঠানের প্রধান বক্তা এটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট মাহবুবে আলম এবং সভাপতি ড. নূহ-উল-আলম লেনিন।

উল্লেখ্য,তাসমিমা হোসেন বাংলাদেশের খ্যাতিমান মিডিয়াব্যক্তিত্ব। তিনি বাংলাদেশের ঐতিহ্যবাহী সংবাদপত্র দৈনিক ইত্তেফাকের সম্পাদক। দেশের ইতিহাসে নারী হিসেবে তিনিই প্রথম কোনো জাতীয় দৈনিকের সম্পাদক হয়েছেন। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সাবেক সংসদ সদস্য। এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের একমাত্র নারীবিষয়ক পাক্ষিক পত্রিকা ‘পাক্ষিক অনন্যা’র প্রকাশক ও সম্পাদক। ১৯৮৮ সাল থেকে পত্রিকাটি নিয়মিত প্রকাশিত হচ্ছে। এই পত্রিকা থেকে ১৯৯৩ সাল থেকে প্রদান করা হচ্ছে অনন্যা শীর্ষদশ সম্মাননা এবং ১৯৯৪ সাল থেকে প্রদান করা হচ্ছে অনন্যা সাহিত্য পুরস্কার। তাসমিমা হোসেন ১৯৫১ সালে পুরানো ঢাকার গেন্ডারিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তিনি উচ্চতর শিক্ষা গ্রহণ করেন।

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন