মিথ্যা বলার ভয়াবহ পরিণতি

0
2
মিথ্যা বলার ভয়াবহ পরিণতি

প্রকাশিত: শুক্রবার, ১৯ আগস্ট ২০২২, ৩রা ভাদ্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ (শরৎকাল) ।। ২০মহরম, ১৪৪৪ হিজরি ।।

বিক্রমপুর খবর : অনলাইন ডেস্ক : জীবনের বাঁকে বাঁকে ও প্রতিটি পদক্ষেপে আমরা কত মিথ্যার কী পরিমাণ আশ্রয় নিচ্ছি। সততা থেকে আমরা কত পিছিয়ে। এ কথা বুঝতে বাকি থাকার কথা নয় যে, মিথ্যাকে একটি ফ্যাশনে পরিণত করা নিরেট বোকামি ও কদর্যতা।

আজকাল বিভিন্ন মিথ্যা বলা সাধারণ বিষয়ে পরিণত হয়েছে। অথচ নবীজি (সা.) বলেন, ‘যে ব্যক্তি মানুষকে হাসানোর জন্য মিথ্যা বলে, তবে তার জন্য ধ্বংস, তার জন্য ধ্বংস।’ (সুনানে আবু দাউদ)

আবার মিথ্যা বলাটা অনেকের জন্য ফ্যাশন স্বরূপ। যে ব্যক্তি যত পরিমাণ মিথ্যা বলতে পারে, তাকে তত পরিমাণ চতুর ও বুদ্ধিমান মনে করা হয়। মিথ্যা ও ফাঁকিবাজি এসব গুনাহের কাজ, এ বিশ্বাসটি মানুষের হৃদয় থেকে উঠে যাচ্ছে। অথচ এগুলো এমন কাজ যার দ্বারা গোটা সমাজ অশান্তি, রিজিকের সঙ্কীর্ণতার মধ্যে নিপতিত হয়।

নবীজি (সা.) বলেছেন, ‘ধিকৃত সে, যে কোনো মুমিনের ক্ষতি করে অথবা তার বিরুদ্ধে চক্রান্ত করে।’ (জামে তিরমিজি, হাদিস : ১৯৪০)

চিন্তা করে দেখতে হবে, মিথ্যার কারণে নবী-রাসুলদের গুণাবলি থেকেও দূরে থাকা হয়। তাই সব সময় কথা ও কাজে সততা, সত্যতা ও স্বচ্ছতার পরিচয় দেওয়া এবং মিথ্যার অভিশাপ ও গ্লানি থেকে বেঁচে থাকা জরুরি। এতে দুনিয়া ও আখেরাতে মহান আল্লাহর পক্ষ থেকে উপযুক্ত বিনিময় মিলবে।

(বিজ্ঞাপন) https://www.facebook.com/3square1

নিউজটি শেয়ার করুন .. ..

‘‘আমাদের বিক্রমপুর-আমাদের খবর।

আমাদের সাথেই থাকুন-বিক্রমপুর আপনার সাথেই থাকবে!’’

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন