একুশে পদক ২০২২ পেয়েছেন বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন

0
21
একুশে পদক ২০২২ পেয়েছেন বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন

প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার,৩ ফেব্রুয়ারি ২০২২ইং।। ২০ মাঘ ১৪২৮ বঙ্গাব্দ (শীতকাল)।।৩০ জমাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি।।

বিক্রমপুর খবর : নিউজ ডেস্ক :  বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিক্রমপুরের কৃতি সন্তান অধ্যাপক ড. মো.আনোয়ার হোসেন ‘বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি’তে একুশে পদক ২০২২ পেয়েছেন। দেশের বেসামরিক দ্বিতীয় সর্বোচ্চ একুশে পদক প্রাপ্ত ড. অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন বিক্রমপুরের লৌহজং উপজেলার সাতঘড়িয়া গ্রামের সন্তান।তিনি অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় পর্ষদের সম্মানিত সদস্য।

অনুজীব বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন এর আগে তার গবেষণার জন্য রাষ্ট্রপতি পদকও পান। তাঁর এই অর্জনে গোটা মুন্সীগঞ্জ-২ (লৌহজং-টঙ্গীবাড়ি) আসনের সাংসদ সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য ড. নূহ-উল-আলম লেনিন, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট ঢালী মোয়াজ্জেম হোসেন, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা: আবু ইউসুফ ফকির অভিনন্দন জানিয়েছেন। বিক্রমপুর খবর এর পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই। আমরা তার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করছি।

দ্বিতীয় মেয়াদে যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) উপাচার্য পদে নিয়োগ পেয়ে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন। তাকে দ্বিতীয় মেয়াদে বিশ্ববিদ্যালয়টি উপাচার্য পদে নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে (১ জুন ২০২১) মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে তাকে দ্বিতীয় মেয়াদে চার বছরের জন্য উপাচার্য নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।

তিনি বাংলাদেশে জিনোম ও মাইক্রোবায়োম গবেষণা প্রতিষ্ঠায় অন্যতম পথপ্রদর্শক। করোনা অতিমারির শুরু থেকেই অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন এবং তার দল করোনা পরীক্ষা, গবেষণা ও করোনার বিভিন্ন ধরনের রহস্য উন্মোচনে অগ্রণী ভূমিকা রাখছেন। একইসঙ্গে ক্ষুরা রোগ (ফুট অ্যান্ড মাউথ ডিজিজ), ওলান পাকা (ম্যাসটাইটিস), আর্সেনিক বায়ো-রিমিডেশন এবং অ্যান্টিবায়োটিক রেসিসট্যান্স গবেষণায় অনস্বীকার্য অবদান রেখে চলেছেন। তার গবেষণা ইতোমধ্যে দেশ-বিদেশে স্বীকৃতি মিলেছে এবং বিশ্বের খ্যাতনামা বিজ্ঞানীরা তার প্রকাশিত গবেষণাপত্র উদ্ধৃতিও করছেন। তার দেশি-বিদেশি বিভিন্ন গবেষণা সাময়িকীতে এ পর্যন্ত ১৩০টিরও অধিক গবেষণাপত্র, আন্তর্জাতিক পরিসরে চারটি বুক চ্যাপ্টার ও ১৫০টিরও অধিক সম্মেলনে সারসংক্ষেপ প্রকাশিত হয়েছে।

অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেনের জন্ম ১৯৫৮ সালের ১ জানুয়ারি, মুন্সীগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলার সাতঘরিয়া গ্রামে। তার বাবা মরহুম শেখ খোরশেদ আলম ও মা পিয়ারা বেগম। তার স্ত্রী বিলকিস ফেরদৌসী ঢাকার হাবিবুল্লাহ বাহার বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ড. আনোয়ার হোসেন ও বিলকিস ফেরদৌসী দম্পতি দুই সন্তানের জনক-জননী।

 (বিজ্ঞাপন) https://www.facebook.com/3square1

নিউজটি শেয়ার করুন .. ..              

   ‘‘আমাদের বিক্রমপুর-আমাদের খবর।

আমাদের সাথেই থাকুন-বিক্রমপুর আপনার সাথেই থাকবে!’’

একটি উত্তর দিন

দয়া করে আপনার কমেন্টস লিখুন
দয়া করে আপনার নাম লিখুন